সুনামগেঞ্জর শাল্লায় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বেনাপোলে মানববন্ধন

0
44

বেনাপোল প্রতিনিধি
দেশে বার বার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা হচ্ছে। ব্যক্তির অপরাধের কারণে কোন গোষ্টির ওপর আক্রমনের ঘটনা কাম্য নয়। এসব ঘটনার বিচার হয় না। বিচারহীনতার কারনে হামলা নির্যাতন এর ঘটনা একের পর এক ঘটেই চলেছে। এসব ঘটনার দ্রুত বিচার করতে হবে।
বুধবার সকাল ১১ টায় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ বেনাপোল পৌর শাখা আয়োজিত সুনামগঞ্জ জেলা শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রাম সহ দেশব্যপী হিন্দু সম্প্রাদয়ের উপর হামলার লুটপাট ও তান্ডবের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গেফতার, বিচার দাবিতে বেনাপোল সোনালী ব্যংক চত্বরে মানববন্ধন হয়েছে।
বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদের শার্শা উপজেলা শাখার যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক প্রতিদিনের কথার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সুকুমার দেবনাথ বলেন সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমন, তাদের সহায় সম্পত্তি লুট করা হয়েছে। এর আগে নাসিরনগর, রামু, মুরাদনগরে সংখ্যা লঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা হয়েছে। এসব ঘটনার বিচার হয়নি। তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক হামলার বিরুদ্ধে সবাইকে প্রতিবাদ জানাতে হবে। ধর্মনিরপেক্ষ বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির কোন আশ্রয় নেই।
শার্শা উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্যপরিষদের সভাপতি জয়দেব সিংহ ও বিকাশ আইচ সংহতি প্রকাশ করে তাদের বক্তব্য বলেন এদেশে কিভাবে এমন সাম্প্রদায়িক হামলা হয়, তা দুঃখ জনক। রাষ্ট্রের দায়িত্ব সব নাগরিকের জানমালের নিরাপত্তা দেওয়া। অথচ সংখ্যালঘুদের জানমালের নিরাপত্তা নেই। শাল্লার হামলার ঘটনায় বিচারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, এভাবে চলতে পারে না। শাল্লার ওই হামলার সময় প্রশাসন কোথায় ছিল? যাদের নিরাপত্তা দেওয়ার কথা তাদের নামেও তদন্ত হওয়া উচিত।
এসময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ এর সহসভাপতি সুশিল দে, বেনাপোল পৌর কমিটির সভাপতি শান্তিপদ গাঙ্গুলী, বেনাপোল পৌর পুজা উদযাপন পরিষদ এর সহসভাপতি রবিন পাল, শ্যামল দাস সাধারন সম্পাদক উজ্জল বিশ্বাস, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ এর সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু লাল বিশ্বাস, পুজা পরিষদ নেতা শেখর দাস, শিউলি দে, মমতা সরকার, বনশ্রী বিশ্বাস, হৈমন্তী বিশ্বাস, যুব পরিষদ এর সভাপতি সুমন দেবনাথ, সাধারন সম্পাদক গৌতম স্বর্ণকার যুগ্ম সম্পাদক কিশোর দেবনাথ, জীবন কুমার, তন্ময় দেবনাথ অনু প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here