বাড়ী পুড়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে থানায় অভিযোগের ভিত্তিতে আপোষ-মীমাংসা

0
77

সহিদুল ইসলাম, মধুখালী
মঙ্গলবার গভীর রাতে আগুন লেগে সালামতপুর বাদশা শেখের বাড়ী পুড়ে যায়। পূর্বশত্রুতার জের হিসেবে বাদশা শেখ সন্দেহ বশত সালামতপুর গ্রামের সজীব ও সাগর এর নামে মধুখালী থানায় অভিযোগ করে। তারই আলোকে মঙ্গলবার সালামতপুর গ্রামের লোকজন নিয়ে এবং আশেপাশে আরও গ্রামের লোকজন নিয়ে আপোষ-মীমাংসার ভিত্তিতে কামারখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুর রহমান বিশ^াস (বাবু)’র সভাপত্বিতে বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আ. রউফ স্মৃতি যাদুঘরে এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।
আলোচনা সভায় বাদী-বিবাদী এবং গ্রামবাসী ও আশেপাশে গ্রামবাসীর কথাশুনে গ্রামের শান্তির লক্ষে সকলের অনুরোধক্রমে ও সহি সাক্ষরের মাধ্যমে বাদশা শেখ ও তার ছেলে শাহিনুর রহমান বিবাদীর সহিত আপোষ হয়ে যান। তখন গ্রামবাসী বলেন আমরা গ্রামবাসী মিলে বাদশা শেখের ঘর তৈরী করা বাবদ সাহায্যে সহযোগীতা করবো। এই অঙ্গিকার লক্ষে একে অপরের মধ্যে বিরোধীয় অভিযোগ আপোষ-মীমাংসা হয়ে যায়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বীরশ্রেষ্ঠের বড়বোন জোহরা বেগম, কামারখালী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ও প্যালেন চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, ইউপি সদস্য ফরিদ হোসেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কার মোল্যা, বাদশা, টুকু মোজাফ্ফর মৃধা, জাহাঙ্গীর আলম, কোবাদ মৃধা, তেলাম মৃধা, হালিম মোল্যা, মিরাজ খাঁ, আবুল কাশেম খাঁন, জাহাঙ্গীর হোসেন, লাবলু মিয়া, চুন্নু মিয়া, কামাল হোসেন, বিপুল, মোহাম্মাদ আলী মোল্যা, মিজান (বিহাল), শওকত, হায়দার, জাকির হোসেন, আউয়াল মোল্যা, নিহাল সর্দার, আলম মৃধা, বাচ্চু মৃধা, খবির হোসেন, সাইফুল ইসলাম সহ আরো অনেকে প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here