মনিরামপুরে তিন শিশুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

0
8

বিশেষ প্রতিনিধি
যশোর মণিরামপুর উপজেলা এলাকায় হাত,পা, মুখ চেপে ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মনিরামপুর থানায় ৩ শিশুর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
মামলায় অভিযুক্ত তিন শিশু হচ্ছে, ওই উপজেলার পলাশী পশ্চিমপাড়ার কামরুল হাসানের ছেলে খায়রুল (১৩), বাবলু হোসেনের ছেলে রানা (১৩) ও রাশিদা খাতুনের ছেলে মামুন (১২)। মামুন তার নানা কপিল উদ্দিনের বাড়িতে তার মায়ের সাথে থাকে।
শিশুকন্যার মা বলেন,গত শনিবার ১৩ মার্চ দুপুরে শিশু মেয়ে গোসল করে খেলতে যাচ্ছিল। তখন এলাকার রানা, খায়রুল ও মামুন খেলার কথা বলে তাকে পাশের একটি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে একটি গর্তে ফেলে তারা তিনজন হাত-পা ও মুখ চেপে ধরে শিশুটির সর্বনাশ করার চেষ্টা করে। ঘটনাটি আমার প্রতিবেশী এক নারী দেখে ফেললে তারা দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী বলেন, বাগানে ছাগলকে খাওয়াতে গিয়ে কথা শুনতে পাই। এগিয়ে যেয়ে দেখেন বাচ্চাটা বারবার মাথা নাড়াচ্ছে। কিছু বলতে পারছে না। তারা তিনজন শিশুটিকে চেপে ধরে রেখেছে। আমি কাছাকাছি গেলে তারা পালিয়ে যায়।
মনিরামপুরের খেদাপাড়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই গোলাম রসুল সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়ে বিকেলে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। শিশু বাচ্চা ও তার স্বজনদের সাথে কথা বলে সত্যতা পেয়েছি।
মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেন, শিশুটির বাবার সাথে কথা হয়েছে। তিনি বাদী হয়ে রাতে মামলা করছেন। ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত তিন শিশুগুলোর পরিবারসহ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here