সন্ত্রাসীদের হাতে বাপবেটা আহতের ঘটনায় মামলা, আটক ২

0
58

বিশেষ প্রতিনিধি

সদর উপজেলার রহমতপুর গাজীপাড়াস্থ এলাকায় দোকান ঘর নির্মানকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী সন্ত্রাসীদের হামলায় বাপ ছেলে জখমের ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ মামলার এজাহার নামীয় দুই আসামীকে গ্রেফতার করেছে। এরা হচ্ছে, যশোর সদর উপজেলার রহমতপুর গাজীপাড়ার মৃত ইসমাইল বিশ্বাসের ছেলে খলিল বিশ্বাস ও সিরাজুল ইসলাম। গ্রেফতারকৃতদের বৃহস্পতিবার সকালে আদালতে সোপর্দ করেছে।

ওই গ্রামের মৃত রফিউদ্দিন গাজীর ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন বুধবার দিবাগত গভীর রাতে চার আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দেন। আসামীরা হচ্ছে, একই গ্রামের মৃত ইসমাইল বিশ্বাসের ছেলে জসিম উদ্দিন, খলিল বিশ্বাস, সিরাজুল ইসলাম, জসিম উদ্দিনের স্ত্রী ববিতা খাতুন।

মামলায় বাদি বলেন, আসামীদের সাথে তার দোকান ঘর তৈরী করা নিয়ে পূর্ব শত্রুতা চলে আসছে। গত ২৫ ফেব্রুয়ারী সকাল সাড়ে ৯ টার পর জাহাঙ্গীর হোসেন, রহমতপুর গাজীপাড়া গ্রামস্থ তার মুদী দোকানের সামনে পাকা রাস্তার পাশের্^ দোকান তৈরীর কাজ করছিল। উক্ত আসামীরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে হাতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার কাছে যেয়ে তাকে গালিগালাজ করতে থাকে। জাহাঙ্গীর হোসেন গালিগালাজ করতে নিষেধ করলে ধারালো হাসুয়া দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ মারে। কোট কপালে লেগে রক্তাক্ত জখম হয়। অন্যান্য আসামীরা তাকে মারতে থাকলে সে ডাক চিৎকার দিলে ছেলে রোকনুজ্জামান কাজল এগিয়ে আসলে তাকেও আসামীরা এলোপাতাড়ীভাবে মারপিট করে। বাপ ছেলের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা দু’জনকে ছেড়ে গালিগালাজসহ ভয়ভীতি ও প্রান নাশের হুমকী দিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় পুরিশ খলিল বিশ্বাস ও সিরাজুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। তাদেরকে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here