৩ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিকটন চাল আমদানির অনুমোদন

0
50

সত্যপাঠ ডেস্ক॥ রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে জিটুজি পদ্ধতিতে ভারত, থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম থেকে তিন লাখ ৫০ হাজার মেট্রিকটন সিদ্ধ ও আতপ চাল আমদানির নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে সরকার। বুধবার (১০ মার্চ) দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।
বৈঠক শেষে প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী বলেন, বুধবার অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৮ম ও সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১০ম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদনের জন্য তিনটি এবং ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে তিনটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া টেবিলে একটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে অনুমোদনের জন্য তিনটি প্রস্তাবই খাদ্য মন্ত্রণালয়ের।
ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির প্রস্তাবগুলোর মধ্যে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের দু’টি এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল। এতে মোট অর্থের পরিমাণ ৬৬৩ কোটি ৪৮ লাখ ১৬ হাজার ৯০১ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সস্পূর্ণ অর্থই জিওবি থেকে ব্যয় হবে। অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা বিভিন্ন সোর্স থেকে চাল আনার চেষ্টা করছি। এর একটাই কারণ, কোনো জায়গায় ফেল করলে সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। সে কারণে আমরা রিস্কটা মিনিমাইজ করার জন্য বা আরো কমিয়ে আনার জন্য বিভিন্ন সোর্স থেকে কেনার ব্যবস্থা করছি।
চাল দাম প্রতিকেজি কতো করে পড়ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, চালের প্রতিকেজি কতো সেটা এখনও আসেনি। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত কমিটি নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে। এখন আমাদের রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে চালের দাম সংগ্রহ করবে। এরপর ভার্চ্যুয়ালি আলোচনা করে নির্ধারণ করবে। চাল নিয়ে কোনো রিস্ক না নেওয়ার জন্যই ভারত, থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম থেকে চাল আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কতো দামে কেনা হবে সেটা পড়ে ক্রয় সংক্রান্ত কমিটিতে আবার আসবে।
অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরে অর্থমন্ত্রী বলেন, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন খাদ্য অধিদপ্তর রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে জিটুজি পদ্ধতিতে ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের সিভিল সাপ্লাইস করপোরেশন লিমিটেড (পিইউএনএসইউপি) থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিকটন নন বাসমতি সিদ্ধ চাল সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে আমদানির নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী অফিসের সাকননাখোন ন্যাশনাল ফার্মস কাউন্সিল থেকে এক লাখ ৫০ হাজার মেট্রিকটন নন বাসমতি সিদ্ধ চাল ও ভিয়েতনামের সাউদার্ন ফুড করপোরেশন থেকে ৫০ হাজার মেট্রিকটন আতপ চাল (সাদা) সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে আমদানির নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here