রাস্তায় পানি আটকানো নিয়ে বিরোধ : থানায় অভিযোগ

0
64

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের দাদপুরে রাস্তায় পানি আটকিয়ে রাখা সংক্রান্ত বিরোধে শংকার নামের এক ব্যক্তিকে মারপিট ও তার কাছে টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এব্যাপারে দাদপুর গ্রামের লক্ষীকান্ত সরকারের ছেলে আহত শংকর সরকার (২৮) বাদী হয়ে একই গ্রামের মৃত দুলাল সরকারের ছেলে রমেশ সরকার (৪৫), বিনয় সরকারের ছেলে কবিলান্দ সরকার (২৫) ও বিনয় সরকারের স্ত্রী নমিতা রাণী সরকারের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দাখিল করেছেন।
এজাহার সূত্রে ও বাদী শংকর জানান, আসামীরা রাস্তায় পানি আটকিয়ে রাখা সংক্রান্ত বিষয়ে আমি (বাদী) কথা বলায় আমার উপর চরমভাবে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে মারধর করার ষড়যন্ত্র করতে থাকে। এরই অংশ হিসাবে গত মঙ্গলবার আনুমানিক সকাল ১০ টার দিকে আমি বাড়ি থেকে বের হয়ে “সাস” সমিতি হতে লোন নেওয়া ৪০ হাজার টাকা পরিশোধের জন্য কালি মন্দিরের সামনে বসে থাকা সমিতির অফিসারের কাছে যাচ্ছিলাম।
এসময় আমি আসামীদের বাড়ির সামনে পৌছালে তারা আমার পথ রোধ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। আমি বিষয়টির মৌখিকভাবে প্রতিবাদ করলে তারা দেশীয় অস্ত্র দ্বারা আমাকে মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নিলাফোলা জখম করে, শ্বাসরোধ করে আমাকে হত্যার চেষ্টা করে এবং আমার কাছে থাকা ৪০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এছাড়াও আমি বাম হাত দিয়ে ঠেকাতে গেলে আমার হাতের বৃদ্ধ আঙ্গুল ভেঙে যায়। এসময় আমার ডাক চিৎকারে স্বাক্ষীরা সহ আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামীরা আমাকে জীবন নাশের হুমকী ও ভয়ভীতি দেখিয়ে চলে যায়। পরে আমার পরিবারের লোকজন স্বাক্ষীদের সহায়তায় আমাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা করায়। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন আহত শংকর সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here