মানবতার ফেরিওয়ালা মেয়র লিটন

0
57

বেনাপোল প্রতিনিধি : চারিদিকে করোনা আতঙ্কে চলছে মানুষের জীবন। তারপর বয়ে গেল ইতিহাসের সব থেকে বড় ঝড় আম্ফাম। দুঃসময়ে দিন পার করছে মানুষ। এ দুঃসময়ে ও জনগনের পাশে নেই জনগনের নেতা জননেতা দাবীদাররা। আপনি বাঁচলে বাপের নাম’ নীতিতে ঘাপটি মেরে বসে আছেন। অবশ্য কেউ কেউ প্রধামন্ত্রীর দেয়া ত্রাণ বিতরণে করে ফটোসেশনের মধ্যে বিশাল দায়িত্ব পালন করে ফেলেছেন।

এমন অবস্থায় ব্যাতিক্রমদের একজন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন। করোনা ভাইরাসের শুরু থেকে নগরবাসীকে সুরক্ষার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করছেন। লকডাউন শুরু হবার পর রাজপথে জীবানুনাশক স্পে্রৃ পরিচ্ছন্ন অভিযান জোরদার করেন। নিজে রান্তা থেকে স্প্রে কার্যক্রমে অংশ নেন।

এ্রই মধ্যে চলে আসে ঈদ। রমজান শেষে এই ঈদে ঘরবন্দী মানুষের মাঝে তিনি গত তিনদিন ধরে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতারন করে চলেছেন। তিনি শার্শা উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ানে এবং বেনাপোল পৌর সভা এলাকায় ১০ হাজার ৫ শত মানুষের মাঝে গত তিন দিনে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন করেন। এরপরও আজ বেনাপোল পৌর এলাকার অসহায় দরিদ্র মানুষ আসে তার নিত্য হাটে ঈদ উপহার সামগ্রী নিতে। হৃদয়বান এই মানুষটি সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি আসা প্রায় ২ হাজার নারী পুরুষকে ঈদ উপহার সামগ্রী দেন। এর মধ্যে চিনি সেমাই, চাল, সাবান, তেল, দুধ জাতীয় পন্য ছিল। তিনি রমজানের শেষ দিনে ও উপচে পড়া মানুষ দেখে পিছিয়ে যান নাই। তিনি নিজ হাতে তাদের দেখে হাসি মুখে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন করেন। এবং সকলকে করোনা ভাইরাস থেকে সাবধানে থাকতে বলেন।

এছাড়াও তিনি রমজানের শুরুতে নিজে প্রধান মন্ত্রীর দেওয়া খাদ্য সামগ্রী এবং নিজ পরিবারের ও নিজের অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরনে নিজে মনিটুরং করছেন। সকলে খাদ্য সামগ্রী বিরণতো বিকেলে ইফতারির প্যাাকেট নিয়ে ছুটচেন রাস্তায়। খোঁজ রাখছেন মেডিকেল চিকিৎসা ব্যবস্থার। শুধু মানুষ নয় পথের বিড়াল কুকুরদের জন্যও খাদ্য বিতরণ করছেন তিনি।

মেয়র লিটনের এমন কর্মকান্ডে খুশি নগরবাসী। তার কর্মকান্ডে সম্প্রতি সচেতন মহল প্রশংসা করে পাশে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে মেয়র লিটন বলেন আমি এ জনপদের একজন প্রতিনিধি। আমি যদি আমার পৌর সভার মানুষকে ভাল রাখতে না পারি তাদের সুখে দুঃখে পাশে না থাকতে পারি তবে আমার এ সেবার কোন মানে হয় না। আমার সাধ্যমতে আমি কাজ করে যাব। তারপরও ভুল ভ্রান্তির মাঝে মানুষ। আপনারা আমার পাশে থাকবেন । আমি যে পর্যন্ত পারি সেই পর্যন্ত আমি এবং আমার পরিবার এই শহরের মানুষের পাশে থাকব। বিপদের মুহুর্তে দুরে থাকব না। গত পাঁচ মাস যাবৎ আছি ভবিষ্যাতেও থাকব। আমি আমার প্রানের, মায়ার ভালবাসার বেনাপোলের মানুষকে ছেড়ে দুরে থাকতে পারি না।


Warning: A non-numeric value encountered in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1009

Warning: Use of undefined constant TDC_PATH_LEGACY - assumed 'TDC_PATH_LEGACY' (this will throw an Error in a future version of PHP) in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/plugins/td-composer/td-composer.php on line 109

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here