‘কমরেড কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য – অমর হোক’

0
65

সত্যপাঠ ডেস্কঃ
সাম্যের কবি, গণমানুষের কবি-
বিদ্রোহী কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য
প্রথমে ম্যালেরিয়া পরে যক্ষ্মারোগে আক্রান্ত হয়ে এদিনে- মাত্র ২১ বছর (প্রায়) বয়সে –
১৯৪৭ সালে -১৩ মে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
কমরেড কবি সুকান্তের-
জন্মস্থান-কলিকাতা তাঁর মাতুলালয়ে হলেও
তাঁর পৈত্রিক নিবাস বাংলাদেশের-
বর্তমান গোপালগঞ্জ জেলার-
কোটালীপাড়া উপজেলার উনাশিয়া গ্রাম।
ভারতবর্ষে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের শেষ সময়ে-
ভারতবর্ষে তাদের নিষ্ঠুর-অমানবিক
শাসন শোষণ নিপীড়নের ফলে জনতার-
ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী-
স্বাধীনতা ও মুক্তির সংগ্রাম
কিশোর সুকান্তকে অনুপ্রাণিত করে,
তিনি এর থেকে বিদ্রোহী হয়ে উঠে-
শোষিত নিপীড়িত মানুষের স্বাধীনতা ও মুক্তির জন্য কবিতা লিখতে আরম্ভ করেন এবং
সাম্যবাদী রাজনীতিতে জড়িত হয়ে শ্রমিক কৃষক- মেহনতি জনতার আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন।১৯৪৪ সালে তিনি-
ভারতের কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য হন।
১৯৪৫ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় তিনি অকৃতকার্য হন। এরপর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় আর অগ্রসর হননি। কমরেড কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য
আরও বেশি সময় বেঁচে থাকলে কি হতেন?
এর উত্তর না খুজেও বলা যায়- তাঁর সৃষ্টি অতুলনীয়,
যা যুগে যুগে কবি সাহিত্যপ্রেমী মানুষ,
শ্রমিক কৃষক ছাত্র বিপ্লবী বুদ্ধিজীবী সহ
মেহনতি জনতাকে প্রেরণা জোগাবে,
শক্তি যোগাবে,উজ্জীবিত করবে,
স্বাধীনতা, মুক্তির সংগ্রাম ও
সমাজবিপ্লবে পথ দেখাবে।

কমরেড কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের মৃত্যুদিবসে
তাঁকে বিনম্র শ্রদ্ধা ও লাল সালাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here