ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)’র নিন্দা ও প্রতিবাদ

0
93

সত্যপাঠ রিপোর্ট : বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)’র কেন্দ্রীয় সভাপতি কমরেড নুরুল হাসান ও সম্পাদক কমরেড ইকবাল কবির জাহিদ এক বিবৃতিতে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে’ মামলা, গ্রেফতার ও গণমাধ্যমসহ মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপর রাষ্ট্র ও সরকারের দমন-নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, তথ্যপ্রযুক্তিবিদ ও ‘রাষ্ট্রচিন্তা’র সদস্য মো. দিদারুল ইসলাম ভুঁইয়া, কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, লেখক মুশতাক আহমেদ, মিনহাজ মান্নানকে গ্রেপ্তার করে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে’ মামলা দেয়া হয়েছে। এর আগে ৫৪ দিন নিখোঁজ সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল ‘উদ্ধার’ হওয়ার পর ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে’ মামলা করা হয়েছে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা বারবার বলে আসছি যে, করোনা মোকাবেলায় ‘সরকারের একলা চলো নীতি’ জনগনকে ব্যপক ঝুঁকির মধ্যে ফেলবে। একটা জাতীয় সমন্বিত উদ্যোগের মধ্য দিয়েই এই ধরনের জাতীয় সংকট মোকাবেলা করা সম্ভব। আর একারণেই জনগনের গঠনমূলক মতামত বা পরামর্শ বেশী বেশী করে সংগঠিত করা দরকার। বরং সরকার নিজেদের সমন্বয়হীনতা, অদক্ষতা, অযোগ্যতা, ব্যর্থতা, বিভিন্ন অনিয়ম, ত্রান চুরি, লুটপাট ইত্যাদি ঢাকার জন্য গনবিরোধী ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’ আরো কঠোর করার হুমকি দিয়ে মামলা ও হয়রানি করছে। এর ফলে করোনা মোকাবেলার কাজ চরমভাবেই ব্যহত হচ্ছে।
নেতৃবৃন্দ মুক্তচিন্তা, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, সামাজিক গণমাধ্যমসহ সকল গণমাধ্যমের উপর অব্যাহত রাষ্ট্র ও সরকারের নির্যাতনের বিরুদ্ধে দেশবাসীকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে নিবর্তনমূলক ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’ অবিলম্বে বাতিল এবং এই আইনে গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দাবি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here