আশাশুনির বুধহাটা বাজারে সামাজিক দুরত্ব রক্ষা চরমভাবে লংঘিত

0
125

এম এম নুর আলম, আশাশুনি থেকে : আশাশুনি উপজেলার বৃহত্তর মোকাম বুধহাটা বাজারে চরম ভাবে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা লংঘের ঘটনা ঘটে চলেছে। ফলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আতঙ্কে রয়েছে এলাকার সচেতন মহল ও সাধারণ মানুষ।
দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব যখন ব্যাপক ভাবে বেড়ে চলেছে, তখন হাটাবাজারে সরকারি নির্দেশনা অমান্যের ঘটনা সকলকে ভাবিয়ে তুলেছে। বুধহাটা বাজারে কয়েক হাজার দোকান-পাট, মিল-কারখানা, ব্যাংক, এনজিও অফিস ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন ভোর থেকে দোকান খোলা থাকা পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষের আগমন হয়ে থাকে।
বাজারের সড়কগুলো মানুষ ও ছোট যানবাহনে যেমন ভাবে পরিপূর্ণ থাকে, তেমনি ভাবে দোকান-পাট, কাঁচা মালের দোকান, ফলফলাদির দোকানসহ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মানুষের ভীড় থাকে চোখে পড়ার মত। মুদি দোকান বা মালামাল তেমন দেখা লাগেনা এমন দোকানগুলোতে দড়ি টানিয়ে দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে দোকানে না ঢুকলেও ক্রেতাদের ভীড় সামাজিক দূরত্ব রক্ষার লেশমাত্র সুযোগ থাকছেনা।
আর কাপড়ের দোকান থেকে শুরু করে যেসব দোকানে মালামাল দেখে নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে, সেসব দোকানে দড়ি টানানো না থাকায় ক্রেতারা দোকানের ভিতরে ঢুকে গিয়ে মালামাল ক্রয় করে থাকে। ফলে দোকানের মধ্যে মানুষের ভীড়ের কারনে একেবারেই চরম ভাবে লংঘিত হচ্ছে সামাজিক দুরত্বের বিষয়টি।
তাছাড়া মানুষের অনেকের মুখে কোন মাক্স থাকেনা, হাতে গ্লাবস নেই। কোন দোকানে হাত ধোয়ানো বা সেনিটাইজার ব্যবহারের কোন ব্যবস্থা করা হয়নি। বাজারের করুন দৃশ্য দেখে যারা সচেতন, যারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে আগ্রহী ও ব্যস্ত তারাও নিতান্ত বাধাগ্রস্ত হওয়ায় ঝুঁকিতে রয়েছে। এব্যাপারে প্রতিরোধ ব্যবস্থার পাশাপাশি দোকান ও ব্যবসায়ীদেরকে কঠোরভাবে সতর্ক করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন মহল ও এলাকাবাসী।


Warning: A non-numeric value encountered in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1009

Warning: Use of undefined constant TDC_PATH_LEGACY - assumed 'TDC_PATH_LEGACY' (this will throw an Error in a future version of PHP) in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/plugins/td-composer/td-composer.php on line 109

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here