করোনা ভাইরাস : গত দুই দিনে কোন রোগী সনাক্ত হয়নি, যশোরে মোট আক্রান্ত ৫৭

0
86

এম আর রকি : ৩ মে রোববার যশোর জেলায় কোন করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন। তাছাড়া, রোববার যশোর জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে ৪৭টি স্যাম্পুল সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানোর প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানানো হয়েছে, গত ১০ মার্চ থেকে এ যাবত যশোর জেলায় ৫৭জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চিকিৎসক, সেবিকা স্বাস্থ্য কর্মী ও সংবাদ কর্মী উল্লেখ্য যোগ্য। গত ২৪ ঘন্টায় ৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে ৪৬জন ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন।
বর্তমানে ৭৯ জন নারী ও পুরুষ কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান করছে এর মধ্যে ঝিকরগাছা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৭৬জন, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ৩জন।
যশোর জেলার বিভিন্ন হাসপাতাল কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৩২জন। এর মধ্যে ঝিকরগাছায় ২২জন, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ৭জন, ও কেশবপুর হাসপাতাল থেকে ১জন। গত ২৪ ঘন্টায় বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রোগীর সংখ্যা ৮৬জন। এর মধ্যে ঝিকরগাছায় ৭৬জন, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ৩জন অভয়নগরে ৭জন।
গত ২৪ ঘন্টায় কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন ৭৮জন। এর মধ্যে ঝিকরাগাছা থেকে ২২জন, কেশবপুর থেকে ৩জন, শার্শায় ২জন, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৭জন, যশোর সদরের বিভিন্ন বাসা বাড়ি হতে ৪০ জন, চৌগাছায় ২জন ও বাঘারপাড়ায় ২ জন। শুধুমাত্র কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন ২জন। গত ২৪ ঘন্টায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত হাসপাতালে ভর্তি সুস্থ্য রোগী ও মৃত্যুর কোন সংখ্যা নেই।
গত ১০ মার্চ থেকে ৩ মে রোববার পর্যন্ত এ যাবত যশোরের বিভিন্ন এলাকার হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে ৩ হাজার ৫৫৫জন। তার মধ্যে ৩ হাজার ২শ’জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। এ যাবত যশোরের হাসপাতাল গুলির কোয়ারেন্টাইনে ১ হাজার ৭শ’ ৯ জন রোগী অবস্থান করেছেন। এর মধ্যে ১ হাজার ৪১ জন ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন। যশোর জেলায় সর্বমোট কোয়ারেন্টাইনে রোগীর সংখ্যা ৫ হাজার ২শ’ ৬৪জন। এ যাবত কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন, ৪ হাজার ২শ’ ৪১জন। এ যাবত আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৫৫ জন। এর মধ্যে ছাড়পত্র গ্রহন করেছেন ২জন । কোভিড-১৯ এ আক্রান্তর সংখ্যা ৫৭জন। এর মধ্যে ২২জন আইসোলেশনে ভর্তি ছিল ২২জন।


Warning: A non-numeric value encountered in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 1009

Warning: Use of undefined constant TDC_PATH_LEGACY - assumed 'TDC_PATH_LEGACY' (this will throw an Error in a future version of PHP) in /home/njybpvbk/public_html/wp-content/plugins/td-composer/td-composer.php on line 109

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here