যশোর সদরে কলেজছাত্রী অপহরনের অভিযোগে মামলা

0
167

বিশেষ প্রতিনিধি : বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থী নাহিদা ইয়াসমিন (১৭)কে ভোর রাতে অপহরনের অভিযোগে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
পুলিশ অপহৃতা নাহিদা ইয়াসমিনকে উদ্ধার করলেও অপহরণকারী ফিরোজ হোসেনকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
সে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার মতমপুর গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে।
যশোর সদর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের এরশাদ আলীর ছেলে নুর ইসলাম শনিবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন, তার মেয়ে নাহিদা ইয়াসমিন যশোর শিক্ষাবোর্ড মডেল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী।
আসামী ফিরোজ লম্পট ও দুস্কৃতিকারী।
ফিরোজ হোসেনের এক আত্মীয়র বাড়ি নুর ইসলামের বাড়ির পাশে থাকার সুযোগে ফিরোজ আসা যাওয়া করতো।
সেখান থেকে নাহিদা ইয়াসমিনকে নানাভাবে উত্যক্তসহ ফুসলাতো।
গত ২৩ এপ্রিল ভোর রাত সাড়ে ৫ টায় নাহিদা ইয়াসমিন বাড়ির সামনে পায়ে হাটার এক পর্যায় ফিরোজ দুই মোটর সাইকেল যোগে ওৎপেতে থেকে নাহিদা ইয়াসমিনকে ফুসলিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যায়।
এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় এজাহার দায়ের করা হলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফিরোজ হোসেনের বাড়ি হতে নাহিদা ইয়াসমিনকে উদ্ধার করে।
ফিরোজ হোসেনকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here