করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় মাগুরায় বাম গণতান্ত্রিক জোটের গণকমিটি গঠিত

0
194

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : করোনাভাইরাস-জনিত দুর্যোগ দিনে দিনে আরও প্রবল হয়ে উঠছে। বাংলাদেশে প্রথম রোগী শনাক্ত হয়েছিল ৮ মার্চ, এখন ৪৩তম দিবস চলছে। এই সময়কালে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা যেমন বাড়ছে অন্য দিকে চিকিৎসা ব্যবস্থার করুণ চিত্র ফুটে ওঠছে এবং মানুষের জীবনে অর্থনৈতিক সংকটও বেড়ে চলেছে। যেমন, মাগুরা জেলায় করোনা টেস্ট করারই কোন ব্যবস্থা নেই। ফলে হটলাইনের মাধ্যমে পরীক্ষার ব্যবস্থা করে রিপোর্ট আসতে আসতে ৭দিন লেগে যাচ্ছে। মাগুরা জেলায় সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ নেই, ভেন্টিলেটরও নেই। ফলে করোনা রোগীর চিকিৎসার প্রাতিষ্ঠানিক আয়োজন নেই বললেই চলে।
এছাড়া সাধারণ ছুটির ২৬তম দিন চলছে। মাগুরা জেলার শ্রমজীবী দরিদ্র মানুষ খাদ্য সংকটে খুব মানবেতর জীবনযাপন করছে। খুব দ্রুত তাদের কাছে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া প্রয়োজন। তা না হলে এক মানবিক বিপর্যয় দেখা দিতে পারে। এমনই একটি সংকটময় সময়ে এই দুর্যোগ মোকাবিলায় দল-মত নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে মাগুরা জেলায় গণকমিটি গঠনের লক্ষ্যে আজ ২০ এপ্রিল ’২০ সকাল সাড়ে ১০টায় রেডিয়েন্ট স্কুল প্রাঙ্গনে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় উপস্থিত ব্যক্তিবর্গের মতামতের ভিত্তিতে ওয়ার্কার্স পার্টি মার্কসবাদী মাগুরা জেলা আহ্বায়ক কাজী ফিরোজকে আহ্বায়ক, বাংলাদেশ জাসদ মাগুরা জেলা শাখার সভাপতি এটিএম মহব্বত আলীকে যুগ্ম আহ্বায়ক, সিপিবি সদর উপজেলা সভাপতি এটিএম আনিসুর রহমানকে সদস্য সচিব এবং বাসদ কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সদস্য শম্পা বসুকে যুগ্ম সদস্য সচিব করে ১৫ সদস্যবিশিষ্ট গণকমিটি গঠিত হয়। গণকমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন — কামরুজ্জামান চপল (বিশিষ্ট সমাজ সেবক), শরীফ তেহরান টুটুল (সদস্য সচিব, তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুত বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি) বীরেন বিশ্বাস (সভাপতি, সিপিবি মাগুরা জেলা), খান শরাফত হোসেন (সম্পাদক, দৈনিক খেদমত), এস আলম তুহিন (সাংবাদিক, দৈনিক মানবজমিন), বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী ( সাধারণ সম্পাদক, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী মাগুরা জেলা), সত্যজিৎ চক্রবর্তী (সঙ্গীত সম্পাদক, সুর সপ্তক), বিবেক মজুমদার (বিশিষ্ট সমাজ সেবক), ইয়াকুব ইমরান (স্কলাসটিকা স্কুলের শিক্ষক), ভবতোষ বিশ্বাস জয় (সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর জেলা আহ্বায়ক), মো. সোহেল(সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর শহর কমিটির আহ্বায়ক) মোঃ হাসিব (সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর শহর কমিটির সদস্য), গোলাম মাওলা রাজিব (সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর শহর কমিটির সদস্য), পিন্টু বিশ্বাস ( সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী)।
এই দুর্যোগকালীন সময়ে সকলেরই যথাসাধ্য ভূমিকা পালন করা উচিত বলে সভায় নাগরিকবৃন্দ মত প্রকাশ করেন।
গণকমিটি নিয়মিত যোগাযোগ করবে এবং নিম্নোক্ত ৩টি দাবি আদায়ে ভূমিকা পালন করবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
১| করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় দলীয়করণ বাদ দিয়ে সর্বদলীয় গণকমিটি গঠন করুন।
২| দরিদ্র, নিম্নবিত্ত শ্রমজীবী মানুষকে সাপ্তাহিক ভিত্তিতে খাদ্য সহায়তা প্রদান করুন।
৩| মাগুরা জেলা সরকারি হাসাপাতালে অবিলম্বে করোনা টেস্টের ব্যবস্থা করা, আইসিইউ ও কমপক্ষে ৫টি ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here